শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১২:৫১ অপরাহ্ন

ভালুকায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী ২৭ বছর পর গ্রেফতার

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৭ এপ্রিল, ২০২৩, ১১.১২ এএম
  • ১৪১ বার পাঠিত

ষ্টাফ রিপোর্টারঃ- ময়মনসিংহের ভালুকায় নিজ স্ত্রীকে হত্যার দায়ে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত ২৭ বছর পলাতক আসামী কামাল হোসেনকে গ্রেফতার করেছে ভালুকা মডেল থানা পুলিশ। (০৬ এপ্রিল) বৃহস্পতিবার রাতে গাজীপুর মেট্রোপলিটনের কাশিমপুর থানা এলাকা থেকে এসআই কাজল হোসেন, এসআই নজরুল ইসলাম ও এএসআই পাইলট ভৌমিকের নেতৃত্বে ভালুকা মডেল থানা পুলিশের অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত কামাল হোসেন ভালুকা উপজেলার পুরুড়া গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে। ভালুকা মডেল থানার তদন্ত ওসি জাহাঙ্গীর আলম জানান, ১৯৯৬ সালে কামাল হোসেনের তার বাবার সাথে ভরাডোবা বাজারে একটি রাইস মিলে চাকরী করতো। চাকরী করা অবস্থায় কামাল হোসেন সুরাইয়া খাতুনের সাথে বিবাহ হয়। বিবাহের পর থেকেই তাদের পারিবারিক কলহের জেরে ১৯৯৬ সালের ১৫ই মার্চ সুরাইয়া নিখোঁজ হয়। নিখোঁজের ৭ দিন পর ১৯৯৬ সালের ২২ই মার্চ ভালুকা উপজেলার পুরুড়া নারাংঙ্গীপাড়ায় কুদ্দুস মিয়ার বাড়ীর পাশে একটি সেফটি ট্যাংকির ভিতর বস্তাবন্ধি অবস্থায় সুরাইয়ার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় সুরাইয়ার বাবার করা মামলায়,  ২০১৯ সালের ২১ জুলাই বিজ্ঞ আদালত পেনাল কোডের ৩০২ ধারায় আসামী কামাল হোসেনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড সহ ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৩ মাসের কারাদন্ড প্রদান করা হয় এবং পেনাল কোডের ২০১ ধারায় তার বিরুদ্ধে দুই বছরের কারাদন্ড এবং ১০হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ০৩ মাসের জেল হয়। পরে আত্মগোপনের ২৭ বছর পর গাজীপুরের মেট্রোপলিটন কাশিমপুর থানা এলাকা থেকে তাকে আটক করে শুক্রবার সকালে জেল হাজতে পাঠায় পুলিশ। উল্লেখ্য, মামলায় তিনজন আসামী তারাফ হোসেন, জামিলা খাতুন, মর্জিনা খাতুন মৃত্যু বরন করায় মামলা হতে অব্যাহতি দেওয়া হয়, আব্দুর রাজ্জাক, ইসমাইল হোসেন, হেলেনা খাতুনকে খালাশ প্রদান করা হয় এবং কামাল হোসেনকে যাবত জীবন সাজা প্রদান করা হয়।

দয়াকরে নিউজটি শেয়ার করুন

আরো পড়ুন.....

greenaronno.com

themes052459
© All rights reserved © 2018 মুক্তকণ্ঠ
Theme Download From Bangla Webs