বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১০:৪০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :

ভারেতের পেট্রাপোল বন্দরে তৃতীয় দিনের মত ধর্মঘট চলছে দু’দেশের বন্দর এলাকায় আটকা পড়েছে কয়েক হাজার পন্যবোঝাই ট্রাক

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২ ফেব্রুয়ারী, ২০২২, ১১.০৩ এএম
  • ১৫৫ বার পাঠিত

ফারুক হাসান,বেনাপোল প্রতিনিধি: বেনাপোল বন্দর দিয়ে তৃতীয় দিনের মত দ’ুদেশের মধ্যে আমদানি-রফতানি বানিজ্য বন্ধ রয়েছে। ফলে আজ বুধবার সকাল থেকে বেনাপোল বন্দর দিয়ে কোন পণ্যবোঝাই ট্রাক আমদানি ও রফতানি হয়নি। পেট্রাপোল বন্দরে এলপি (ল্যান্ডপোর্ট) ম্যানেজার কর্তৃক নানাবিধ হযরানির প্রতিবাদে এ ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন বনগাঁ গুডস ট্রান্সপোর্ট এসোসিয়েশন, বনগাঁ ট্রাক মালিক সমিতি, পেট্রাপোল সিএন্ডএফ এজেন্টস স্টাফ ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন ও বনগাঁ মহকুমা ট্রাক শ্রমিক ইউনয়ন, ট্রান্সপোর্ট এসোসিয়েশন, যাত্রীবাহী পরিবহন সমিতিসহ বন্দর ব্যবহারকারী বিভিনś সংগঠন। পেট্রাপোল বন্দরে আমদানি-রফতানি কাজে নানা হয়রানি বন্ধসহ নতুন এলপি ম্যানেজারের প্রত্যাহারের দাবিতে অনিদিষ্টকালের এই ধর্মঘটের ডাক দেয়া হয়েছে।সোমবার সকাল থেকে আন্দোলনকারীদের সাথে বন্দর কর্তৃপক্ষের কয়েক দফা বৈঠক করেও কোন ফল হয়নি।

পেট্রাপোল বন্দরের স্টাফ ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের সভাপতি গোবিন্দ চন্দ্র জানান, নতুন এলপি ম্যানেজার ব্যবসায়ীদের সাথে কোনো কথা না বলে বন্দর এলাকায় প্রবেশের উপর নতুন নতুন আইন তৈরী করে আমাদের বাণিজ্যে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে। নতুন এলপি ম্যানেজার বিএসএফকে কাজে লাগিয়ে ট্রাক শ্রমিকদের বন্দর অভ্যান্তরে প্রবেশ করতে দিচ্ছেন না। পন্য পরিবহন কাজে জড়িত শ্রমিকদের বন্দরের আইসিপিতে প্রবেশের মুখে বিএসএফের বাধার মুখে পড়তে হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, কাস্টমস ইউনিক কার্ড ছাড়া কোনো পরিবহন কর্মীকে আইসিপি ও বন্দর অভ্যান্তরে প্রবেশ করতে না পারায় আমদানি-রফতানি কাজে জড়িতদের নানা সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। এসব হয়রানির প্রতিবাদে প্রশাসনের সাথে বৈঠক করা হলেও এলপি ম্যানেজার তার সিদ্ধান্তে অটল রয়েছেন। ইন্ডিয়া-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাট্রিজের ডাইরেক্টর মতিয়ার রহমান জানান, গত সোমবার সকাল থেকে ভারতীয় পেট্রাপোল বন্দর ব্যবহারকারী বেশ ক’টি শ্রমিক সংগঠন পেট্রাপোল বন্দরে এলপি (ল্যান্ডপোর্ট) ম্যানেজার কর্তৃক নানাবিধ হযরানির প্রতিবাদে অনির্দিষ্টকালের এই ধর্মঘটের ডাক দেয়। এ ধর্মঘটের কারণে দু’দেশের বন্দর এলাকায় কয়েক হাজার পণ্যবোঝাই ট্রাক আটকে আছে। ফলে কাঁচামালের অভাবে শিল্প কলকারখান ও গার্মেন্টস ইন্ডাট্রিজের উৎপাদন ব্যহত হচ্ছে মারাত্বকভাবে।বেনাপোল বন্দরের সহকারি পরিচালক সঞ্জয় কুমার জানান, বেনাপোলের ওপারে ভারেতের পেট্রাপোল বন্দরে অনির্দিষ্টকালের ডাকা ধর্মঘটের কারনে তৃতীয় দিনের মত বুধবার সকাল থেকে বেনাপোল বন্দর দিয়ে কোন পণ্য আমদানি রফতানি হয়নি। তবে বেনাপোল বন্দরে মালামাল লোড আনলোড সহ পন্য ডেলিভারি স্বাভাবিক রয়েছে।

দয়াকরে নিউজটি শেয়ার করুন

আরো পড়ুন.....

greenaronno.com

themes052459
© All rights reserved © 2018 মুক্তকণ্ঠ
Theme Download From Bangla Webs