মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ত্রিশালে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ ভালুকায় প্রাইভেটকারের ভিতরে ধর্ষণের ঘটনায় আটক ১ তিন বছর ধরে কাগজের নিচে বসবাস ভয়ে স্ত্রী সন্তান নিয়ে ঘর ছাড়া ময়মনসিংহ শিল্প এলাকায় শ্রমিকের শতভাগ বেতন ও ভাতা নিশ্চিত করা হয়েছে! …পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমান  ভালুকায় ১ লাখ নিম্নআয়ের মানুষের মাঝে হাজ্বী রফিকের ঈদ উপহার বিতরণ ভালুকায় ইয়াবা ও হেরোইনসহ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার ভালুকায় কবি’দের আড্ডায় কবিতা পাঠ ও ইফতার ত্রিশালে খাদ্য নিয়ন্ত্রণ কার্যালয়ের আয়োজনে অবহিত করণসভা অনুষ্ঠিত ভালুকা যুবদলের ইফতার অনুষ্ঠিত ভালুকায় সাত হাজার পরিবারকে হাজ্বী রফিকের ঈদ উপহার বিতরণ

ভালুকায় শিল্পপতি আব্দুর রাজ্জাকের দুই পা’ দা দিয়ে কুপিয়ে বিছিন্নের মুলহোতা সহ গ্রেফতার ৭ এলাকায় প্রতিবাদের ঝড়

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১৬ জুলাই, ২০২১, ১০.৪৪ এএম
  • ৩৫১০ বার পাঠিত

খলিলুর রহমান:- ময়মনসিংহের ভালুকায় পূর্ব শত্রুতার জেরে শিল্পপতি আব্দুর রাজ্জাকের দুই পা দা দিয়ে কুপিয়ে কেটে ফেলার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এঘটনায় এলাকায় নিন্দা ও প্রতিবাদের ঝড় বইছে। অপরাধীদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবী করেছেন,স্থানীয় এমপি, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, ইউপি চেয়ারম্যান ও সর্বস্তরের মানুষ। জানাযায়, ২০০০সালে আব্দুর রাজ্জাক উপজেলার কাঠালী মৌজার ২৬৮নং দাগে কতক জমি ক্রয় করে আর্টি কম্পোজিট নামে একটি মিল স্থাপন করে ব্যবসা শুরু করেন। মিল স্থাপনের কিছুদিন পর থেকেই স্থানীয় আঃ মান্না পাঠানের ছেলে জসিম পাঠানের সাথে আব্দুর রাজ্জাকের জমি-জমা নিয়ে বিরোধ সৃষ্টি হয়। এ নিয়ে বিজ্ঞ আদালতে উভয় পক্ষের মামলা রয়েছে। পূর্ব শত্রুতার জেরে ঘটনার দিন ১৪ জুলাই বুধবার সকালে ফ্যাক্টরীর পাশে সরকারী খালে মিলের বর্জ্য ও পানি নিষ্কাশনের পাইপ লাইন স্থাপনের কাজ চলাকালিন সময় শিল্পপতি আব্দুর রাজ্জাককে কৌশলে ডেকেনিয়ে পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে জসিম পাঠান ও তার সহযোগীরা প্রথমে এলোপাথারী ভাবে আঘাত করে আব্দুর রাজ্জাককে মাটিতে ফেলে দেয় এবং কুপিয়ে আব্দুর রাজ্জাকের দুইপা দেহ থেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলে।গুরুতর আহত আব্দুর রাজ্জাককে প্রথমে ভালুকা পরে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে। চিকিৎসাধিন আব্দুর রাজ্জাক আশংকাজনক অবস্থায় রয়েছে। এঘটনায় আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে তৌফিকুর রাজ্জাক বাদী হয়ে মামলার,জসিম উদ্দিন পাঠান সহ ১০জনকে চিহ্নিত ও ৮/১০জনকে অজ্ঞাত আসামী করে ভালুকা মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ২৬তাং ১৫/০৭/২০২১ ইং। এ মামলার মূলহোতা জসিম উদ্দিন পাঠান, তার সহযোগী রুহুল আমিন পাঠান, ইকবাল পাঠান, এবং মাসুম মোল্লাকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। এছাড়াও পুলিশ ৩জনকে গ্রেফতার করে। এ ঘটনায় মল্লিকবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এস এম আকরাম হোসাইন, ভালুকা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবুল কালাম আজাদ ও জাতীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব কাজিম উদ্দিন আহমেদ ধনু পৃথক পৃথক ভাবে নিন্দা জানিয়েছেন। সস্থানীয় জানান,আর্টি কম্পোজিট মিলের জমি ২৬৮ নং দাগে। মূল খালটি জসিম পাঠানের দখলে থাকায় এখন খালটি ২৬৮দাগে প্রবাহিত হচ্ছে।এনিয়ে সরকারীভাবে কয়েকবার খালের সীমানা নির্ধারণ করে দেওয়া হলেও জসিম পাঠান খালের দখল না ছাড়ার কারনে বিরোধ নিষ্পত্তি হচ্ছিলনা। এক সময়ের খরস্রুতা ধোবাজান খালটির বুকে এখন জসিম উদ্দিন পাঠানের বাড়ি। ভালুকা মডেল থানার ওসি মাহমুদুল ইসলাম জানান, মামলা রেকর্ড হয়েছে। এঘটনায় পুলিশ ৩জনকে ও র‌্যাব ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে। ২জনকে ৭দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। বাকী আসামীদের গ্রেফতারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

দয়াকরে নিউজটি শেয়ার করুন

আরো পড়ুন.....

greenaronno.com

themes052459
© All rights reserved © 2018 মুক্তকণ্ঠ
Theme Download From Bangla Webs