মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ০১:৩২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ভালুকার শিল্প কারখানার শ্রমিকদের শতভাগ বেতন বোনাস নিশ্চিত করছে শিল্প পুলিশ ভালুকায় ভিজিএফের চাল নিতে আসা হতদরিদ্রদের মাঝে শরবত-পানি ও পান পরিবেশন করে প্রসংশিত ইউপি চেয়ারম্যান ময়মনসিংহের শিল্প পুলিশ শিল্পাঞ্চলে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় বদ্ধপরিকর ভালুকায় ভূমিসেবা বিষয়ক সচেতনতামূলক সভা ভালুকায় বিয়ের পর যৌতুক না দেয়ায় স্বামীর বাড়িতে উঠিয়ে না নেয়ায় নববধূর বিষ খেয়ে আত্মহত্যা আমারবাংলা সাহিত্য পুরষ্কার ও আমার কথা ভালুকায় মসজিদ নিয়ে ফেসবুকে কটুক্তি করায় গ্রেপ্তার-০১ ভালুকায় সাবেক এমপি আমান উল্লাহ চৌধুরীর ১০ম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত সালথায় জনসাধারণের মাঝে বিএনপি’র খাবার পানি ও স্যালাইন বিতরণ ভালুকায় দুই দিন ব্যাপী কবি ও কবিতা উৎসব ও আমারবাংলা সাহিত্য পুরষ্কার প্রদান

সাড়ে ২২মণ ওজনের ষাড় লাল বাদশা

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১০ জুলাই, ২০২১, ২.২৮ পিএম
  • ৫২২ বার পাঠিত

টি.আই সানি,নিজস্ব প্রতিনিধিঃ সাড়ে ২২ মণ ওজনের লাল বাদশা, চলন-বলনেও আভিজাত্যের ছোঁয়া। এ কারণে নাম রাখা হয়েছে ‘লাল বাদশা। ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা উপজেলার হবিরবাড়ি ইউনিয়নের মনোহরপুর গ্রামের উজ্জ্বল কবির তিন বছর ধরে লালন-পালন করে আসছেন লাল বাদশা নামক ষাড় গরুকে। ৬৩ হাজার টাকায় শাহীওয়াল জাতের ষাঁড় বাচুরটি ক্রয় করেছিলেন একই উপজেলার জামিরদিয়া গ্রামের নবী হোসেনের ছেলে তাজুল ইসলাম এর কাছ থেকে। এবারের ঈদে শাহীওয়াল জাতের ওই ষাঁড় গরুটি ন্যায্য মূল্য পেলে বিক্রি করবে উজ্জল কবির। ঈদ উল আজহাকে সামনে রেখে উপজেলার হাটে এটি হবে অন্যতম চমক। উজ্জ্বল কবির বলেন, ২২.৫ মণ ওজনের ষাঁড়টির দাম হাঁকাচ্ছেন ১২ লাখ টাকা। তবে বাড়ি থেকে কেউ কিনতে চাইলে আলোচনা সাপেক্ষে বিক্রি করবেন বলে জানান তিনি।গরুর হাটসহ সামাজিক যোগাযোগের বিভিন্ন মাধ্যমেও প্রচার হয়ে আসছে লাল বাদশার কথা। লাল বাদশাকে দেখতে প্রতিদিন ভিড় করছেন অনেক মানুষ। শনিবার (১০ জুলাই) দুপুরে উপজেলার মনোহরপুর গ্রামের উজ্জ্বল কবির বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, ১৫ থেকে ২০ জন মানুষের জটলা। কেউ সেলফি তুলছেন। আবার কেউ শুধু ষাঁড়টির ছবি তুলছেন নিযে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছাড়ছেন। তাদেরই একজন বাসু মিয়া বলেন, অনেক আগে থেকেই শুনে আসছি অনেক বড় একটি ষাঁড় আছে মনোহরপুর গ্রামে। তাই আমি ও আমার বন্ধুদের নিয়ে দেখতে আসলাম। শ্রীপুর উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নের আবদার গ্রাম থেকে দেখতে আসা মোকলেছুর রহমান বলেন ষাঁড়টি দেখতে আমাদের গ্রামের অনেকেই দেখে গেছেন তাই আমিও দেখতে এসেছি ষাঁড়টি যেমন লাল তেমনি নাম রাখা হয়েছে লাল বাদশা তাই ষাঁড়টির সাথে ছবি তুলে নিয়া গেলাম। ভালুকা উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তালয়ের ডাঃ হক সাহেব বলেন,সম্পূর্ণ দেশীয় পদ্ধতিতে লাল বাদশা নামে ষাঁড়টি লালন-পালন করেছেন মালিক। কোনো সৌখিন ক্রেতা ষাঁড়টি উপযুক্ত দাম দিয়ে কিনলে মালিক উৎসাহিত হবেন। ষাঁড়টির লালন-পালনকারী উজ্জ্বল কবির একজন ভালো উদ্যোক্তা। ষাঁড়টি খুব শান্ত স্বভাবের। প্রথম থেকেই আমি ষাঁড়টির সব ধরনের চিকিৎসা করে আসছি।লাল বাদশাকে কেনার জন্য যোগাযোগঃ- ০১৯৩১-৯৯৫৫১৭, ০১৯৮৭-৫১০৪৩৪ নাম্বারে যোগাযোগ করা যাবে উজ্জল কবিরের সাথে।

দয়াকরে নিউজটি শেয়ার করুন

আরো পড়ুন.....

greenaronno.com

themes052459
© All rights reserved © 2018 মুক্তকণ্ঠ
Theme Download From Bangla Webs